যদি আপনি কাউকে ভালোবাসেন আর আপনি যদি চান আপনার ভালোবাসা সবসময় এভাবেই থাকুক

 



আজকের গল্পে টি শুরু করার আগে আপনাদের বলতে চায় যে যদি আপনি কাউকে ভালোবাসেন আর আপনি যদি চান আপনার ভালোবাসা সবসময় এভাবেই থাকুক কখনোই কোনো খারাপ পরিস্থিতি যেন না আসে সেজন্য আপনাকে কখনোই ছেড়ে চলে না যায় তাহলে আজকেরগল্পে টি অবশ্যই শেষ পর্যন্ত দেখুন কারণ আজ আমি আপনাদের বলব যে ভালোবাসা থেকেই হয় কি কি পরিস্থিতি ভালোবাসার মধ্যে আছে আর সম্পর্ক পুরনো হয়ে যাবার পর থেকে নতুন সম্পর্কের মতো কিভাবে ধরে রাখতে হয় এসব কিছু আপনাদের বলবো কাউকে ভালবাসো অনেক সহজ কিন্তু এই ভালোবাসা বাঁচিয়ে রাখা বা দীর্ঘদিন ধরে ভালোবাসাকে একই রকমের রাখার জন্য আপনাকে একটু পরিশ্রম তো করতেই হবে প্রতিটি সম্পর্কে এমন একটা সময় অবশ্যই আছে যখন তারা একে অপরের সাথে এতটাই মিশে যায় তখন তারা

 একে অপরের সাথে সমস্ত রকমের ছোট ছোট কথা শেয়ার করা শুরু করে তারা এত বেশি ক্লোজ হয়ে যায় যে তার পার্টনার কে নিজের জীবনী নয় শরীরের একটি অংশ মনে করে নেয় আর এটাই হল সেই সময় যখন সামনের জন আমাদের কাছে আশা করা শুরু করে যে সারা জীবন তার ছোট ছোট বিষয় খেয়াল রাখব আর এখানে সবাই আসলে ভুলটা করে থাকে কারন আপনারা যেহেতু একে অপরের সম্পর্কে সবকিছু জেনে গেছেন তার প্রতিদিনের প্রতিটি মিনিট আপনার কাছে কমন হয়ে ওঠে তখন বেশি কথা বলার জন্য আপনার কাছে আর তেমন কোন কথা থাকে না আর ঠিক তখনই আপনার পার্টনার মনে করেন আপনি তাকে আর হয়তো আগের মতো করে ভালোবাসেন না আগের মত কেয়ার করেনা আর সম্পর্কের মধ্যে তখন ঝগড়া হওয়া শুরু হয় আর একে অপরের থেকে দূরে যেতে থাকে 

তাই এমন সময় আপনি কি করবেন সবার প্রথমে প্রশংসা করা কখনও বন্ধ করবেন না ভালোবাসা হল এমন একটি জিনিস যা প্রতিদিন ভালোবাসাকে আরো গভীর করে তোলে মনে করে দেখুন তো আপনাদের সম্পর্ক শুরুর সময় আপনি তাকে ইমপ্রেস করার জন্য কি কি করতেন আপনিও জানেন আপনি তার প্রশংসা করতেন তার সমস্ত ছোট ছোট জিনিস গুলোর জন্য যেমন তার হাসি তার চুল তারপর তারপর সব কিছু প্রশংসা করতেন তাই ভালবাসা যদি এখন কম হয়ে যাচ্ছে তাহলে পুনরায় এটা করা শুরু করুন এরপর তাকে স্বাধীনভাবে বাঁচতে দিন আহমেদের ভালোবাসার মানে এটা নয় যে সব কিছুতেই তাকে বাধা দেবেন কারণ তারা নিজের একটা জীবন আছে তাই সব সময় থাকে না খেয়ে 

কিছুকাল তার মনের মতো করে পড়তে দিন তাকে সাপোর্ট করুন সে যেন কখনো এটা না ভাবে যে সে এখন আপনার মনের মত কিছুই করতে পারবে না তাই তাকে আটকে থাকে স্বাধীনতা দিন এরপর আপনাদের ভালোবাসায় আপনার মোবাইলের অনেক গুরুত্ব ছিল কারণ প্রথমদিকে এই মোবাইলে আপনাদেরকে একে অপরের সাথে ঝুলিয়ে রাখত কিন্তু আজ যখন আপনারা কাছাকাছি চলে এসেছে বা যখন কাছাকাছি আসবে তখন মোবাইলটাকে ছেড়ে দিন বেশিরভাগ ক্ষেত্রে দেখা যায় একসাথে বসে থাকে কিন্তু তারপরেও নিজের মোবাইল নিয়ে ব্যস্ত থাকে আর এই মোবাইলে যা কখনো আপনাদের কাছে নিয়ে এসেছিল সেথায় আজ আপনাদের দূরত্বের কারণ হয়ে ওঠে তো বন্ধুরা আপনিও ছোট ছোট তিনটি রুলস ফলো করেন তাহলে দেখবেন আপনার ভালবাসা সবসময় সুন্দর হয়ে থাকবে আর আপনার খুশিতে থাকতে পারবেন 


Reactions

Post a Comment

0 Comments