pages 35 And I am the indestructible soul and if I am the soul then it is not জগত ও আমি Jagat O Ami (Bengal

 


And I am the indestructible soul and if I am the soul then it is not possible for me to die. While I see this death as the only certainty in the world, everything else is uncertain. But death. Where is my indestructible when I become a soul in a place where all lockers must one day happen and when it is inevitable? Again, if the soul is indestructible, then who pays homage to what I have done to my parents? The dead person

 
is respected. Who do we mourn when the soul is restless? When I have no direct knowledge of the call, my soul should not say anything perishable or indestructible. Sadly, I say that the soul is indestructible due to blind faith, but even if I say this, there is no end to my troubles or unrest. This suggests that if I had a direct knowledge of my soul, I would have been relieved of my anxiety and irritability. Without that, the irritation on the fruit is gradually gaining wisdom, I believe, I can't even imagine that he can go away with this "I". I don't know if this is the case or not, I just chanted on behalf of Atma, I Atma or Saeh Sehhong, nothing irritates

 
or disturbs me. Right now I see that there is no increase in the loss of me or let the world go, my irritability has become very necessary to end the unrest. While I was thinking like this in my mind, my mind was subdued by the devil (demonic spirit) and informed me, but what are your thoughts? Long-term pursuits may not be needed to get rid of your irritability or discomfort right now.





ও আমি আত্মা অবিনাশী হন এবং আমি যদি আত্মা স্বরূপই হই তাহা হইলে আমার মৃত্যু হওয়া সম্ভবপর নহে। অথচ আমি জগতের মধ্যে এই মৃত্যুকেই একমাত্র নিশ্চিত বলিয়া দেখিতেছি, অপর সমস্তই অনিশ্চিত। কিন্তু মৃত্যু। যখন সক লকার এক দিন নিশ্চয়ই হইয়া থাকে এবং ইহা যখন অবশ্যম্ভাবী, এমন স্থলে আমি আত্মা হইলে আমার অবিনাশীৰ কোথায় গেল? আবার আত্মা যদি অবিনাশী হন তাহা হইলে আমি যে আমার পিতৃ মাতৃ শ্রাহ্মালি করিয়া থাকি তাহা কাহার শ্রাদ্ধ কে করে? মৃত ব্যক্তিরই ত শ্রদ্ধ হইয়া থাকে। আত্মা যখন অনিশ তখন আমি শ্রাদ্ধ কৰি কার ? আমার যখন আহ্বা সম্বন্ধে কোন প্রত্যক্ষ জ্ঞান নাই, তখন আমার আত্মাকে বিনাশ শীল বা অবিনাশী কিছুই বলা উচিত নহে। দুঃখের বিষয় আমি অন্ধ বিশ্বাসের বশবর্তী হইয়া আত্মা অবিনাশীই বলিয়া থাকি, আমি ইহা বলিলেও আমার স্বালার বা অশান্তির বিরাম নাই। ইহাতেই আমার অনুমান হয় যে আমার আত্মা সম্বন্ধে প্রত্যক্ষ জ্ঞান থাকিলে আমার নিশ্চয়ই অশান্তি ও জ্বালা

 
তিরােহিত হইত। তাহা না হইয়া ফলার উপর জ্বালা ক্রমশঃই বুদ্ধি প্রাপ্ত হইতেছে, আমার বিশ্বাস, আমার এই “আমি” বােধ থাকিতে সে অালা যাইতে পারে তাহও বুকিতে পারি না। এই আমি বােধ যায়ই বা কিসে তাহা জানি না, আমি আত্মা, আমি আত্মা বা সােহং সােহহং পক্ষ মাত্র জপ করিলাম কিছুতেই আমার জ্বালা বা অশান্তি বাইল না। এক্ষণে দেখিতেছি আমি বা জগৎ যায় যাক তাহাতে ক্ষতি বৃদ্ধি নাই, আমার জ্বালা অশান্তির অবসান হওয়া নিতান্ত প্রয়োজন হইয়া উঠিয়াছে। এইরূপ মনে মনে চিন্তা করিতেছি এমন সময় আমার মন শয়তানের (আসুরিক ভাবের) বশীভূত হইয়া আমাকে মােহিত করিয়া বলিয়া উঠিল, তবে আর তােমার ভাবনা কি ? তোমার জ্বালা বা অশান্তি এখনি নিবারণ হইতে পারে তাহাতে বহুকালব্যাপী সাধনারও প্রয়ােজন হবে না
Reactions

Post a Comment

0 Comments